• রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৬:০১ পূর্বাহ্ন |
  • English Version
শিরোনাম :
কটিয়াদীতে দুদল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত শতাধিক, পুলিশের গুলি, গ্রেপ্তার ২৩ জমি অধিগ্রহণের দুই কোটি টাকা ফেরত না দিতে নানা ষড়যন্ত্র দাতার বিরুদ্ধে লাল বাহাদুরের রং পাল্টে হয়ে গেল কুচকুচে কালো নানা অঙ্গসজ্জায় সাজানো হয় কোরবানির পশু পাচারকালে ৬০ বস্তা সার জব্দ করে মামলা পৌনে তিনশ বছরের প্রাচীন শোলাকিয়া ঈদগার প্রস্তুতি ভৈরবে এমবিশন পাবলিক স্কুলের জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা কুরবানী সম্পর্কীত কিছু মাসায়েল ; সংকলনে : ডা. এ.বি সিদ্দিক ছিনতাইকৃত টাকা ও মাদক উদ্ধারে অবদান রাখায় আইজিপি পুরস্কারে ভূষিত ভৈরবের ওসি সফিকুল ইসলাম ইসরায়েলি গণহত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন

জিয়ার হাতে বঙ্গবন্ধুর রক্ত খালেদা জিয়ার হাতে ২১ আগস্টের রক্ত লেগে আছে ——– সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী খালিদ

বক্তব্য রাখছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি। -পূর্বকণ্ঠ

জিয়ার হাতে বঙ্গবন্ধুর রক্ত
খালেদা জিয়ার হাতে ২১
আগস্টের রক্ত লেগে আছে
——– সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী খালিদ

# নিজস্ব প্রতিবেদক :-
কিশোরগঞ্জ জেলা শিল্পকলায় দুই দিনের সাহিত্য মেলা উদ্বোধন করতে এসে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বলেছেন, এখন তথ্যপ্রমাণ উঠে আসছে। ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু হত্যার সঙ্গে জিয়াউর রহমান সরাসরি জড়িত ছিলেন। ৩ নভেম্বর জাতীয় চার নেতার জেল হত্যাকা- হয়েছে জিয়ার প্রত্যক্ষ মদদে। আর তারই স্ত্রী খালেদা জিয়া আর তাদের পুত্র তারেক রহমান বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যার জন্য ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মত ঘটনা ঘটিয়েছিলেন। সেদিন আইভি রহমানসহ অনেকেই শহীদ হয়েছিলেন। কাজেই জিয়ার হাতে বঙ্গবন্ধুর রক্ত, আর খালেদা-তারেকের হাতে ২১ আগস্টের রক্ত লেগে আছে। তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়ার দ্বিতীয় ছেলে আরাফাত রহমান মারা যাবার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাতৃত্বের অনুভূতি নিয়ে গিয়েছিলেন আরেক শোকগ্রস্ত মা খালেদা জিয়াকে শান্ত¡না দিতে, সহানুভূতি জানাতে। কিন্তু খালেদা জিয়া দরজাটাও খুললেন না। এমনই প্রতিহিংসা তার মনের মধ্যে। আজকে বিএনপি জঙ্গিবাদ আর জামায়াত-শিবিরের আশ্রয়স্থল।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ময়মনসিংহ শহরে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের বাসা আর আমাদের বাসা কাছাকাছি। অনেক কাছ থেকে তার জীবনযাপন দেখেছি। তার ঘরের চালা দিয়ে বৃষ্টির সময় পানি চুইয়ে পড়তো। আর আজকে রাজনীতিবিদদের শনৈ শনৈ উন্নতি হচ্ছে, রাতারাতি গাড়ি-বাড়ি হচ্ছে। আগেকার দিনের নেতাদের জীবন থেকে শিক্ষা নেয়ার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রীর আগ্রহে দেশের ৬৪ জেলায় সাহিত্য মেলা হচ্ছে। জেলা পর্যায়ের সাহিত্য মেলা শেষ করার পর আগামী জানুয়ারিতে রাজধানীতে জাতীয় সাহিত্য মেলার আয়োজনের উদ্যোগ নেয়া হবে। তিনি বলেন, আমাদের স্বাধীনতা অর্জনের পটভূমি তৈরিতে কবি-সাহিত্যিকদের বিশাল ভূমিকা রয়েছে। বঙ্গবন্ধুও তাদের কদর করতেন। বঙ্গবন্ধু নিজেও লেখক ছিলেন। তার লেখা কারাগারের রোজনামচা এর প্রকৃষ্ট উদাহরণ। প্রধান অতিথি আলোচনা শেষে মেলায় স্থাপিত বিভিন্ন বইয়ের স্টল পরিদর্শন করেন এবং ফিতা কেটে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে সাহিত্য মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।
তৃণমূল পর্যায়ের কবি-সাহিত্যিকদের সাহিত্যকর্ম জাতীয় পর্যায়ে জনসমক্ষে তুলে ধরার লক্ষ্যে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পৃষ্ঠপোষকতায় এবং বাংলা একাডেমির সমন্বয়ে জেলা প্রশাসন ২৩ ও ২৪ নভেম্বর জেলা শিল্পকলায় দুই দিনের সাহিত্য মেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি প্রথম দিন ২৩ নভেম্বর বুধবার সকালে প্রধান অতিথি হিসেবে সাহিত্য মেলার উদ্বোধন করেন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কিশোরগঞ্জ-১ আসনের এমপি ডা. সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি, বাংলা একাডেমির সচিব (সরকারের যুগ্ম-সচিব) এএইচএম লোকমান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাসেল শেখ পিপিএম (বার), জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এমএ আফজল এবং স্থানীয় কথা সাহিত্যিক ডা. দ্বিন মোহাম্মদ।
বক্তাগণ সমৃদ্ধ স্থানীয় সাহিত্যকর্ম ও সাংস্কৃতিক কর্মকা-ের পাশাপাশি জাতীয় পর্যায়ে ভূমিকা রাখা জেলায় জন্ম নেয়া প্রতিষ্ঠিত কবি-সাহিতিক এবং সাংস্কৃতিক ব্যক্তিদের স্মরণ করেন। সাহিত্য মেলায় জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে কবি-সাহিত্যিক ও সংস্কৃতি কর্মীগণ অংশ নেন। উদ্বোধনী পর্বশেষে প্রথম দিনের কর্মসূচীতে বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহাম্মদ নূরুল হুদার উপস্থিতিতে লেখক কর্মশালা, প্রবন্ধ পাঠ, আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এসব অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ নুরুজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এটিএম ফরহাদ চৌধুরী। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সহকারী কমিশনার নাবিলা ফেরদৌস ও কালেক্টরেটের গ্রন্থাগারিক সারওয়ার আহমেদ খান। সাহিত্য মেলার দ্বিতীয় দিনও থাকবে সাহিত্য পাঠ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) ফারজানা খানমের সভাপতিত্বে এসব অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন গণগ্রন্থাগারের মহাপরিচালক সরকারের অতিরিক্ত সচিব মো. আবুবকর সিদ্দিক ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাসেল শেখ পিপিএম (বার)।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *