• মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন |
  • English Version
শিরোনাম :
একই বিদ্যালয়ের দুই প্রধান শিক্ষক শহীদ বুদ্ধিজীবী বিদায়ী অধ্যক্ষ-সভাপতি দ্বন্দ্বে শিক্ষক-কর্মচারীর বেতন বন্ধ বাজিতপুরে বইয়ের কভারের আদলে বাড়ির সীমানা প্রাচীর দেখতে মানুষের ভিড় (আপডেট) স্মার্ট দেশ গড়তে হলে নতুন প্রজন্মকে স্মার্ট করে গড়ে তুলতে হবে…… নাজমুল হাসান পাপন এমপি বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা শরীফুল আলম কারামুক্ত কুলিয়ারচরে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী নাজমুল হাসানকে নাগরিক সংবর্ধনা ১২ কেজি গাঁজাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার লায়ন মশিউর আহমেদ ওয়েশকা ইন্টারন্যাশনাল জাপান বাংলাদেশ ন্যাশনাল চ্যাপ্টার এর দ্বিতীয় ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচিত ভৈরবে ১ সপ্তাহের ব্যবধানে দুই গৃহবধূ জন্ম দিলেন ৬ সন্তান ভৈরবে শিমুলকান্দি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের নবম বর্ষে পদার্পণে কেক কাটা ও সার্টিফিকেট বিতরণ

আগাম কদম

আগাম কদম

# নিজস্ব প্রতিবেদক :-
‘মাই তুই জলে না যাইয়ো কলঙ্কিনী রাধা, কদম ডালে বসে আছে কানাই হারামজাদা’- রাধা-কৃষ্ণের উপাখ্যানের এই গানের কলি অনেকেরই জানা। কদম ফুল দেখা যায় বর্ষাকালের শুরুতে। সকল গণমাধ্যমই কদমের ছবি আর গান বা কবিতার ছন্দ দিয়ে পহেলা আষাঢ় প্রতিবেদন তৈরি করে। কিন্তু একটি বিশাল ঝাকড়া গাছে দুইমাস আগেই দেখা মিললো হাজার হাজার কদম ফুল। এটি হোসেনপুরের গাঙ্গাটিয়া জমিদার বাড়ির দৃশ্য। বাড়ির আঙিনায় একটি প্রায় অর্ধশত বছরের পুরনো বিশাল কদম গাছ। প্রচার ডালপালা। গাছের গোড়া গোলাকার নীচু দেয়াল দিয়ে ঘিরে বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রতিটি ডালেই প্রচুর ফুল ধরেছে। জমিদার বংশের শেষ প্রতিনিধি মানবেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী চৌধুরী একজন ভীষণ ফুলপ্রেমী মানুষ। তাঁর বাড়িতে কদম ছাড়াও কাঁঠালিচাপা, গোলাপ, গন্ধরাজ, বেলি, কামিনিসহ নানা জাতের ফুলগাছ রয়েছে। তাঁর সঙ্গে কারও দেখা হলে করমর্দনের পরিবর্তে দুটি ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। কোথাও গেলেও একই উদ্দেশ্যে ফুল নিয়ে যান। তাঁর কদম গাছে চৈত্র মাসের শেষ দিক থেকেই ফুল আসতে শুরু করেছে। পুরো গাছটি যেন অপরূপ সাজে সেজেছে। কাছে গেলে কদমের গন্ধও লাগছে নাকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *