• রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৪:৫৯ পূর্বাহ্ন |
  • English Version
শিরোনাম :
কটিয়াদীতে দুদল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত শতাধিক, পুলিশের গুলি, গ্রেপ্তার ২৩ জমি অধিগ্রহণের দুই কোটি টাকা ফেরত না দিতে নানা ষড়যন্ত্র দাতার বিরুদ্ধে লাল বাহাদুরের রং পাল্টে হয়ে গেল কুচকুচে কালো নানা অঙ্গসজ্জায় সাজানো হয় কোরবানির পশু পাচারকালে ৬০ বস্তা সার জব্দ করে মামলা পৌনে তিনশ বছরের প্রাচীন শোলাকিয়া ঈদগার প্রস্তুতি ভৈরবে এমবিশন পাবলিক স্কুলের জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা কুরবানী সম্পর্কীত কিছু মাসায়েল ; সংকলনে : ডা. এ.বি সিদ্দিক ছিনতাইকৃত টাকা ও মাদক উদ্ধারে অবদান রাখায় আইজিপি পুরস্কারে ভূষিত ভৈরবের ওসি সফিকুল ইসলাম ইসরায়েলি গণহত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন

বাজিতপুরে বিজয়ী ছাড়া তিনজন আর ভৈরবে তিনজনের জামানত নেই

বাজিতপুরে বিজয়ী ছাড়া
তিনজন আর ভৈরবে
তিনজনের জামানত নেই

# মোস্তফা কামাল :-
বুধবারের চতুর্থ ধাপের উপজেলা নির্বাচনে বাজিতপুরে চার চেয়ারম্যান প্রার্থীর হেভিওয়েট তিনজনই জামানত খুইয়েছেন। আর ভৈরবে পাঁচ প্রার্থীর মধ্যে তিনজন শক্তিশালী প্রার্থী জামানত খুইয়েছেন।
জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোরশেদ আলম জানিয়েছেন, নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী একজন প্রার্থীকে জামানত রক্ষা করতে হলে প্রদত্ত ভোটের অন্তত শতকরা ১৫ ভাগ ভোট পেতে হবে।
উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, বাজিতপুরে আনারস প্রতীকে ৩৬ হাজার ২১২ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা রেজাউল হক কাজল। তাঁর তিন প্রতিদ্বন্দ্বী সদ্য সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রকিবুল হাসান শিবলী মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ৭ হাজার ৪৭৭ ভোট। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম-আহবায়ক মোবারক হোসেন দোয়াত কলম প্রতীকে পেয়েছেন ৬ হাজার ৮৭৩ ভোট। আর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন সবচেয়ে কম ২ হাজার ২৪৪ ভোট। বাজিতপুরে ভোট পড়েছে ৫৪ হাজার ৫৩৮টি। প্রদত্ত ভোটের ১৫ ভাগ ভোট হয় ৮ হাজার ১৮১টি। ফলে বিজয়ী ছাড়া বাকি তিনজনই জামানত খুইয়েছেন।
এদের মধ্যে আব্দুল্লাহ আল মামুনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা ও একটি ধর্ষণ মামলা আদালতে বিচারাধীন আছে। তিনি ভাড়াটে খুনিদের দিয়ে বাজিতপুরের এক ব্যবসায়ীকে খুন করিয়েছিলেন। পিবিআই (পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন) খুনিদের গ্রেপ্তার করে তাদের স্বীকারোক্তি অনুসারে মামুনকেও গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠিয়েছিল। আদালতে মামলার অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে। মামলাটি এখন বিচারাধীন আছে বলে জানিয়েছেন বাজিতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুর্শেদ জামান।
এছাড়াও এক নারীকে প্রতারণামূলক বিয়ের নামে দিনের পর দিন ধর্ষণ করে মামলায় পড়েছিলেন মামুন। সেই মামলায়ও তিনি কারাভোগ করেছেন। আদালতের নির্দেশে সেই অভিযোগের তদন্ত করে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা পিবিআই’র পুলিশ সুপার মো. শাহাদাত হোসেন। মামুন পরবর্তীতে হাইকোর্ট থেকে জামিনে বেরিয়ে এসেছেন। তবে মামলাটি আদালতে বিচারাধীন আছে বলে পুলিশ সুপার জানিয়েছেন।
ভৈরবে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল মনসুর কাপ পিরিচ প্রতীকে ৪৮ হাজার ২০০ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সেন্টু ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ৩২ হাজার ৪২৫ ভোট। এছাড়া উপজেলা যুবদলের বহিষ্কৃত যুগ্ম-আহবায়ক আল মামুন মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ৭ হাজার ৯৭১ ভোট। কৈ মাছ প্রতীকে সাবেক দুইবারের উপজেলা চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা ড. মোশতাক আহমেদ বুলবুল পেয়েছেন ৫ হাজার ৪৩৫ ভোট। আর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক অলিউল ইসলাম অলি আনারস প্রতীকে পেয়েছেন মাত্র ২১১ ভোট। অবশ্য তিনি গত ৩১ মে ঘোষণা দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন। ভৈরবে মোট প্রদত্ত ভোট ৯৭ হাজার ১৪৬টি। ফলে ১৫ ভাগ পেতে হলে প্রার্থীদের ১৪ হাজার ৫৭২টি ভোট পেতে হতো। কাজেই এখানে আল মামুন, ড. মোশতাক আহমেদ বুলবুল ও অলিউল ইসলাম অলির জামাতন বাজেয়াপ্ত হলো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *