• সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০১:০৭ অপরাহ্ন |
  • English Version
শিরোনাম :
ভৈরবে আরো একজনের করোনা ধরা পড়েছে ভৈরবে ইফতেখার হোসেন বেনু মেয়র নির্বাচিত কারাগারে লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর প্রতিবাদে কিশোরগঞ্জে মানববন্ধন আজ ভৈরব পৌরসভা নির্বাচন, কে হচ্ছেন পৌর পিতা কিশোরগঞ্জে ইয়াবাসহ র‌্যাবের হাতে মাদক ব্যবসায়ী আটক স্যাটেলাইট যুগে প্রতিটি ঘরই এখন প্রেক্ষাগৃহ, কিশোরগঞ্জের ১৯টি হলই বন্ধ ৭টি চালু বন্ধ থাকার মতই ভৈরবে অটোচালক খুনের ৫ মাস পর খুনি গ্রেফতার, স্বীকারোক্তি লাগামহীন অপরাধীরা, ভৈরবে দুই মাসে তিন হত্যাকাণ্ড জ্ঞান ফেরেনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নারীর ভৈরবে সাবেক রাষ্ট্রপতির এপিএস শাখাওয়াত উল্লাহ করোনায় আক্রান্ত ৩৫ কেন্দ্রের মধ্যে ৩০ কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ, আগামীকাল ভৈরব পৌরসভা নির্বাচন

ভৈরবে করোনার উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু, মারা যাওয়া অপর এক ব্যবসায়ীর পজিটিভ, নতুন করে আক্রান্ত আরও ৪২ জন

ভৈরবে করোনার উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু
মারা যাওয়া অপর এক ব্যবসায়ীর পজিটিভ
নতুন করে আক্রান্ত আরও ৪২ জন

# মোস্তাফিজ আমিন :-

ভৈরবে করোনার উপসর্গ নিয়ে মো. নূরুল ইসলাম (৭০) নামে আরও এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তিনি শহরের গাছতলাঘাট এলাকার বাসিন্দা। ৭/৮ দিন যাবত জ্বর-সর্দিতে ভোগতে থাকা নূরুল ইসলামের ৬ জুন শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তাঁকে বাজিতপুরের ভাগলপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তাঁর মৃত্যু হয় বলে জানায় পরিবার।
হাসপাতাল থেকে লাশ আসার পর স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা তাঁর বাড়ি গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করে নিয়ে আসেন। আর উপজেলা করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির লোকজনের উপস্থিতিতে সন্ধ্যায় তরুণ মাওলানাদের একটি স্বেচ্ছাসেবী টিম স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাঁর জানাজাসহ দাফন কাফন করেন।
এদিকে ৫ জুন শুক্রবার শহরের ভৈরবপুর মধ্যপাড়া এলাকায় উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ব্যবসায়ী হাজী জসিম মিয়ার প্রতিবেদন পজিটিভ এসেছে। এ নিয়ে এখানে করোনা শনাক্ত হয়ে মারা গেলেন ৫ জন।
অন্যদিকে রাতে আসা ৩ জুন পাঠানো পরীক্ষার ফলাফলে নতুন করে আরও আক্রান্ত হয়েছেন ৪২ জন। এ নিয়ে উপজেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৪২ জনে। এ ছাড়াও ৪ জন আক্রান্তের দ্বিতীয় ও তৃতীয় ফলাফলও পজিটিভ এসেছে।
৭ জুন রোববার সকালে এইসব তথ্য জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব ডা. বুলবুল আহম্মদ।
এদিকে ঈদের পর আবারও ভৈরবে করোনাভাইরাস শনাক্ত এবং মৃতের সংখ্যা আশংকাজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় উপজেলা প্রশাসন ৫ জুন শুক্রবার থেকে আগামী ২০ জুন শনিবার পর্যন্ত ১৫ দিনের জন্য এখানকার সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে।
এই সময়ে ওষুধ ও কাঁচামালের দোকান ছাড়া সব বন্ধ থাকবে। তবে ধান-চালের আড়ৎ সকাল ১০টা থেকে ৪টা এবং পেঁয়াজ-রসুনের আড়ৎ সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।
এইসব তথ্য জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার লুবনা ফারজানা। তিনি আরও জানিয়েছেন, নতুন শনাক্তের কারণে বেশ কিছু এলাকা লকডাউনসহ ওই এলাকার আশে পাশের মানুষজনের চলাচল সীমিত করে গণবিজ্ঞপ্তি জারী করা হচ্ছে প্রতিদিন।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: কপি করা নিষেধ!!!