• মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ১০:৫৩ অপরাহ্ন |
  • English Version
শিরোনাম :
হোসেনপুরে পুলিশ সুপারের বিদায় সংবর্ধনা তাড়াইলে পুলিশ সুপারের বিদায়ী সংবর্ধনা ভৈরবে বিভিন্ন দাবিতে নিসচাই কর্মীদের পৌর মেয়রের সাথে মতবিনিময় কুলিয়ারচরে বাজরা-ডুমরাকান্দা এলজিইডি রাস্তার পার্শ্ব থেকে গাছ নিধনের মহোৎসব হোসেনপুরে বঙ্গমাতার জন্মদিন উপলক্ষে সেলাই মেশিন ও আর্থিক অনুদান বিতরণ পাকুন্দিয়ায় পুলিশ সুপারকে বিদায়ী সংবর্ধনা প্রদান কিশোরগঞ্জে গাঁজা-ইয়াবা নিয়ে মাদক ব্যবসায়ী র‌্যাবের হাতে আটক সার-তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে কিশোরগঞ্জে কৃষক সমিতির মানববন্ধন ভৈরবে টার্মিনালের ভেতর বাস চাপায় পরিবহণ শ্রমিকের মৃত্যু, পরিবারের দাবি হত্যা কুলিয়ারচরে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত

কিশোরগঞ্জ জেলায় শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ শরীফ আহমেদ ও শ্রেষ্ঠ কলেজ রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ

# মিলাদ হোসেন অপু :-

ভৈরবের ঐতিহ্যবাহী নারী শিক্ষা বিদ্যাপীঠ রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ২০২২ সালে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে কিশোরগঞ্জ জেলায় শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ নির্বাচিত হয়েছেন বিশিষ্ট শিশু সংগঠক ও লেখক শরীফ আহমেদ। এছাড়া কলেজ পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ হয়েছে রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ। অপরদিকে রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ রোভার স্কাউট দল সেরা দল মনোনীত হয়েছে। ছাত্রীদের মধ্যে ইংরেজি বক্তব্যে ফাতেমা আক্তার হাবিবা, একক বিতর্ক প্রতিযোগিতা ফাহিমা সুলতানা, রবীন্দ্র সঙ্গীতে পূজা সাহা, উচ্চাঙ্গ সংগীতে পূজা দাস শ্রেষ্ঠ নির্বাচিত হয়েছে। সর্বমোট ৭টি ইভেন্টে জেলা পর্যায়ে রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ শ্রেষ্ঠ হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।
অধ্যক্ষ শরীফ আহমেদ রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে ১৯৯৬ সালে ১ সেপ্টেম্বর যোগদান করেন। এছাড়াও নরসিংদীর বেলাব উপজেলার নারায়ণপুরে গ্রামীণ পরিবার পরিকল্পনা সেবা প্রকল্প নামক বিদেশী সাহায্যপুষ্ট এনজিওতে প্রকল্প সমন্বকারী হিসাবে ৩ বৎসর কর্মরত ছিলেন। গাজীপুর ক্যান্টনমেন্ট কলেজ বিওএফ গাজীপুর-এ ৩ বছরের প্রভাষক হিসেবে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করেন। সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বেসরকারি সংস্থা পপি’ এর কার্যনির্বাহী কমিটির সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্বরত আছেন। বর্তমানে অধ্যক্ষ শরীফ আহমেদ ভৈরব উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি এর সাধারণ সম্পাদক ও পাঠাগার আন্দোলনের কর্মী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন। এছাড়া তিনি একটি ভৈরবের শিশু পাঠাগারের প্রতিষ্ঠাতা, ভৈরব বইবেলার প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সচিব, শিশু সংগঠক খেলাঘর এর কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মণ্ডলির সদস্য হিসেবে যুক্ত আছেন। আবৃত্তি, বিতর্ক, নাটকসহ অন্যান্য সাহিত্য-সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে ছাত্রজীবন থেকেই উৎপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছেন। সমাজসেবামূলক কর্মতৎপরতায় জড়িয়ে আছেন তিনি। শরীফ আহমেদ রোভার স্কাউট লিডার প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত। এছাড়া ঢাকা আয়োজিত পরিবার পরিকল্পনা সেবা ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে একাধিকবার ব্যবস্থাপনা বিষয়ক প্রশিক্ষণ কোর্সে অংশগ্রহণ করেছেন। শিক্ষাবিষয়ক বিভিন্ন প্রশিক্ষণে তার অংশগ্রহণ রয়েছে। অধ্যক্ষ শরীফ আহমেদ এর কর্মজীবনের পাশাপাশি ব্যক্তিগত জীবনে স্ত্রী, ২ ছেলে ও ১ মেয়ে রয়েছে। স্ত্রী সানজিদা বেগম ইসলামী ইতিহাসে মাস্টার্স সম্পন্ন করে বর্তমানে আদর্শ গৃহিনী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ছেলে শাশ্বত শরীফ মৃদুল বুয়েট থেকে ইইই’ তে স্নাতক অর্জন করে সিমেন্সে চাকুরীরত রয়েছে। ছোট ছেলে আরাফাত শরীফ মুগ্ধ এসএসসি পরীক্ষার্থী। একমাত্র মেয়ে অদিতী শরীফ মিথিলা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্সসহ মাস্টার্স সম্পন্ন করেছেন। অধ্যক্ষ শরীফ আহমেদ এর পিতা মৃত মোসলেহ উদ্দিন আহমেদ ছিলেন অবসরপ্রাপ্ত রেলওয়ে কর্মচারী। মাতা মরিয়ম বেগম ছিলেন একজন গৃহিনী।অধ্যক্ষ শরীফ আহমেদ রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজে যোগদানের পর থেকে কলেজটি উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে সুনামের সাথে শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছেন। শিক্ষার মান উন্নয়নে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন অধ্যক্ষ শরীফ আহমেদ।
জানা যায়, ১৯৮৭ সালে বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. রফিকুল ইসলাম মনোরম, প্রাকৃতিক ও কোলাহলমুক্ত পরিবেশে রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ নামে কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেন। এই কলেজ ২০০২ সালে জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ কলেজ ও ২০১৯ সালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক প্রাক মডেল কলেজ হওয়ার গৌরব অর্জন করে। এই কলেজের একজন সহকারী অধ্যাপক প্রায় শত গ্রন্থের লেখক মো. শহীদুল্লাহ ২০০৪ সালে জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষকের পুরস্কার জয় করে রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেন।
রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজের প্রতিষ্ঠাতা বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. রফিকুল ইসলাম কলেজ এর এই সাফল্যে পরম করুনাময় আল্লাহতায়ালার নিকট শুকরিয়া আদায় করেন এবং কলেজের গভর্নিং বডি, শিক্ষক, কর্মচারী, ছাত্রীদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।এ বিষয়ে রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ পরিচালনা পরিষদ এর সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সাদিকুর রহমান সবুজ বলেন, আমি অত্যন্ত আনন্দিত রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ আজ শিক্ষা সপ্তাহে জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্বাচিত হয়েছে। কলেজ অধ্যক্ষ শরীফ আহমেদও জেলার শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়াও ৫টি ইভেন্টে রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ বিজয়ী হয়েছে। উপজেলা পর্যায়ে রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ শ্রেষ্ঠ হওয়ার পর জেলা পর্যায়ে আবেদন পাঠানো হয়। এতে জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ কলেজ রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ ও শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ শরীফ আহমেদ নির্বাচিত হয়েছেন। এখন আবারও বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠদের নিয়ে আবেদন জমা দেয়া হয়েছে। আসা করি আমরা বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ হবো। এ তিনি আরো বলন, রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ ছাড়া ভৈরবের বিভিন্ন স্কুলের র্শিক্ষক, শিক্ষার্থীরাসহ বিভিন্ন ক্যাটাগরীতে অনেকেই শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছেন। আমি সকলের সফলতা কামনা করছি।
কলেজের অধ্যক্ষ মো. শরীফ আহমেদ তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এই সাফল্যে আমরা রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ পরিবার গর্বিত ও আনন্দিত। বিজয়ীদের ঊষ্ণ অভিনন্দন ও শুভ কামানা জানাই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: কপি করা নিষেধ!!!