• মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:২১ পূর্বাহ্ন |
  • English Version
শিরোনাম :
একই বিদ্যালয়ের দুই প্রধান শিক্ষক শহীদ বুদ্ধিজীবী বিদায়ী অধ্যক্ষ-সভাপতি দ্বন্দ্বে শিক্ষক-কর্মচারীর বেতন বন্ধ বাজিতপুরে বইয়ের কভারের আদলে বাড়ির সীমানা প্রাচীর দেখতে মানুষের ভিড় (আপডেট) স্মার্ট দেশ গড়তে হলে নতুন প্রজন্মকে স্মার্ট করে গড়ে তুলতে হবে…… নাজমুল হাসান পাপন এমপি বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা শরীফুল আলম কারামুক্ত কুলিয়ারচরে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী নাজমুল হাসানকে নাগরিক সংবর্ধনা ১২ কেজি গাঁজাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার লায়ন মশিউর আহমেদ ওয়েশকা ইন্টারন্যাশনাল জাপান বাংলাদেশ ন্যাশনাল চ্যাপ্টার এর দ্বিতীয় ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচিত ভৈরবে ১ সপ্তাহের ব্যবধানে দুই গৃহবধূ জন্ম দিলেন ৬ সন্তান ভৈরবে শিমুলকান্দি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের নবম বর্ষে পদার্পণে কেক কাটা ও সার্টিফিকেট বিতরণ

ভৈরবে শ্রেষ্ঠ বিএনসিসি শিক্ষক অহিদুর রহমান

# মিলাদ হোসেন অপু :-

ভৈরবে শ্রেষ্ঠ বিএনসিসি শিক্ষক হলেন লেফট্যানেন্ট মো. অহিদুর রহমান বিএনসিসিও। তিনি কমলপুর হাজী জহির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত। ২০০৩, ২০১৭, ২০১৮, ২০১৯ সনে কিশোরগঞ্জ জেলা পর্যায়ে নির্বাচিত হওয়ার পর আবার ২০২২ সালে ভৈরব উপজেলা পর্যায়ে পঞ্চম বারের মতো শ্রেষ্ঠ বিএনসিসি শিক্ষক (অফিসার) নির্বাচিত হয়েছেন।
জানা যায়, লেফট্যানেন্ট মো. অহিদুর রহমান ১৯৮৬ সালের ১ নভেম্বর ভৈরব পৌর শহরের কমলপুর হাজী জহির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা পেশায় যোগদান করেন। তিনি ১৯৮৮ সালে ১ জুন এমপিও ভূক্ত হন। শিক্ষকতার পাশাপাশি তিনি ১৯৯০ সালে বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর (বিএনসিসি) তে যোগদান করেন। ২০০২ সালে তিনি বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমি (বিএমএ) থেকে ১ম ব্যাচে প্রি-কমিশন প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। ৩ আগস্ট ২০০৫ সালে তিনি বাংলাদেশ টেরিটোরিয়েল ফোর্স (বিএনসিসিতে) কমিশন লাভ করেন। বর্তমানে তিনি ২ বিএনসিসি ব্যাটালিয়নে কোম্পানী কমান্ডার হিসেবে কর্মরত আছেন। তার মেধা, দক্ষতা ও যোগ্যতা বিবেচনা করে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে ২০১২ সালে ১ আগস্ট প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেন। এছাড়া তিনি ২০১২ সালে বিএনসিসি’র বার্ষিক ক্যাম্পে প্যারেড কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
লেফট্যানেন্ট মো. অহিদুর রহমান ২০১০ ও ২০১৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা গবেষণা ইন্সটিটিউট থেকে ট্রেনিং অব দি ট্রেইনার (TOT) ট্রেনিং কোর্স সম্পন্ন করেন। ২০১৪ ও ২০১৫ সালে প্রধান শিক্ষক হিসেবে শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমি (নায়েম) থেকে শিক্ষা প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ে সফলতার সহিত প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। ২০১৭ সালে তিনি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনেManukau Institute of Technology, Wellington, New Zealand থেকে ICT for School Head teachers and Madrasah Supers Training Course সফলতার সহিত সম্পন্ন করেন।
লেফট্যানেন্ট মো. অহিদুর রহমান জানান, আমি কমলপুর হাজী জহির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ে যোগদানের পর থেকে শিক্ষার মান উন্নয়নের পাশাপাশি ছেলে মেয়েদের বিএনসিসি’র প্রশিক্ষণ বিষয়ে বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়ে তাদের পাশে থেকেছি। আবারও পঞ্চম বারের মতো আমি শ্রেষ্ঠ বিএনসিসি শিক্ষক (অফিসার) নির্বাচিত হয়েছি। আমি চাই কমলপুর হাজী জহির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার মান উন্নয়নের পাশাপাশি সহপাঠ্যক্রমে তাদের পাশে থাকবো। ইতোমধ্যে আমাদের স্কুল থেকে শ্রেষ্ঠ শিক্ষকও নির্বাচিত হয়েছেন।
আমার স্ত্রী আঞ্জুমান আরা বেগম রত্না কমলপুর মোজাফর বেপারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্বরত রয়েছেন। এছাড়া তিনি ভৈরব উপজেলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতির দায়িত্বও পালন করছেন। আমার একমাত্র মেয়ে আদিবা নোশিন অর্পা ভৈরব আইডিয়্যাল কলেজে মানবিক বিভাগে ১ম বর্ষের ছাত্রী। আমি ভৈরবের মানুষের সহযোগিতা নিয়ে শিক্ষার মান উন্নয়নে আমৃত্য কাজ করে যেতে চাই। মহান আল্লাহ যেন সহায় হউন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *