• বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:৫৮ পূর্বাহ্ন |
  • English Version
শিরোনাম :
ভিক্ষা জীবন ছেড়ে কাজ ও বাসস্থান চান কুলিয়ারচরের হিজড়ারা ভৈরবের নির্ভীক নারী শারমিন আক্তার জুঁই স্বেচ্ছাশ্রমের অদম্য কোভিডযোদ্ধা সবাইকে সঙ্গে নিয়ে আরও শক্তিশালীভাবে এগিয়ে যাবে যায়যায়দিন …… এমডি কিশোরগঞ্জে ১২ থেকে ১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের টিকা কার্যক্রম শুরু হলো হোসেনপুরে ইউপি নির্বাচনে সরে দাঁড়ালেন ১০ জন প্রার্থী রূপগঞ্জের হাসেম ফুডস লি. অগ্নিকাণ্ডে মারা যাওয়া ১৯ জনের পরিবারকে অনুদান কিশোরগঞ্জে ৪৫০ পিস ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক কিশোরগঞ্জে উদ্যোক্তাদের নিয়ে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্যোৎপাদন প্রশিক্ষণ র‍্যাবের হাতে ভারতীয় মালামালসহ এক চোরাচালানকারী আটক কিশোরগঞ্জে যানজট নিরসন সংক্রান্ত সভা ৬শ’ অটোর ৯টি রুট

কিশোরগঞ্জে আইজিপি কাপ কাবাডি ফাইনালে বালক ও বালিকায় সদর চ্যাম্পিয়ন

বালক ও বালিকা চ্যাম্পিয়ন দলগুলোর হাতে ট্রফি তুলে দেয়া হচ্ছে -পূর্বকণ্ঠ

কিশোরগঞ্জে আইজিপি কাপ
কাবাডি ফাইনালে বালক ও
বালিকায় সদর চ্যাম্পিয়ন

# মোস্তফা কামাল :-

অনুর্ধ ১৯ আইজিপি কাপ-২০২১ জাতীয় যুব কাবাডি প্রতিযোগিতায় কিশোরগঞ্জে জেলা পর্যায়ের ফাইনালে বালক ও বালিকা উভয় বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সদর উপজেলা দল। আর বালকদের মধ্যে রানারআপ হয়েছে কটিয়াদী উপজেলা দল, বালিকাদের মধ্যে রানারআপ হয়েছে পাকুন্দিয়া উপজেলা দল। বালকদের খেলায় সদর উপজেলা দল ৩৫-১৪ পয়েন্টের ব্যবধানে কটিায়াদী দলকে হারিয়েছে। আর বালিকাদের খেলায় সদর উপজেলা দল ৫৩-৫ পয়েন্টের ব্যবধানে পাকুন্দিয়া দলকে হারিয়েছে।
আজ ৯ নভেম্বর মঙ্গলবার শহরের পুরাতন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফাইনাল শেষে দলগুলোর মধ্যে ট্রফি বিতরণ করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম, বিশেষ অতিথি পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার), জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এমএ আফজল, পৌর মেয়র মাহমুদ পারভেজ, কাবাডি উপকমিটির আহবায়ক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) নাজমুল ইসলাম সরকার, সদস্যসচিব অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) অনির্বাণ চৌধুরী প্রমুখ।এসময় বক্তাগণ বলেন, খেলার মাধ্যমে তরুণ ও যুব সমাজকে যেমন শারীরিকভাবে সক্ষম করে গড়ে তোলা সম্ভব, অন্যদিকে মাদক আর জঙ্গিবাদসহ নানারকম সামাজিক অনাচার থেকে রক্ষা করা সম্ভব। কাবাডি গ্রাম বাংলার একটি ঐতিহ্যবাহী খেলা। ফুটবল, ক্রিকেট, দাবাসহ অন্যান্য খেলারও প্রসার ঘটাতে হবে। এখন করোনার প্রকোপ অনেক কমেছে। যে কারণে খেলাধুলাও মাঠে গড়াচ্ছে। ফলে সবাইকে এক্ষেত্রে মনযোগ দেয়ার জন্য বক্তাগণ আহবান জনিয়েছেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন জেলা ক্রীড়া কর্মকর্তা আল আমিন সবুজ। আর বালিকাদের খেলা পরিচালনা করেন রিপেল হাসান ও শামীম খান। অন্যদিকে বালকদের খেলা পরিচালনা করেন আব্দুল কাহহার ও মো. আব্দুল্লাহ। জেলা ক্রীড়া সংস্থার ব্যবস্থাপনায় আয়োজিত এই আইজিপি কাপ কাবাডি প্রতিযোগিতা গত ৬ নভেম্বর বিকালে উদ্বোধন করেছিলেন পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার)। ১৩ উপজেলা থেকে বালক ও বালিকাদের ২৬টি দল প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিল। প্রতিটি দলের পক্ষে ১২ জন করে খেলোয়াড় মাঠে নামে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: কপি করা নিষেধ!!!