• মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:৫৮ পূর্বাহ্ন |
  • English Version
শিরোনাম :
একই বিদ্যালয়ের দুই প্রধান শিক্ষক শহীদ বুদ্ধিজীবী বিদায়ী অধ্যক্ষ-সভাপতি দ্বন্দ্বে শিক্ষক-কর্মচারীর বেতন বন্ধ বাজিতপুরে বইয়ের কভারের আদলে বাড়ির সীমানা প্রাচীর দেখতে মানুষের ভিড় (আপডেট) স্মার্ট দেশ গড়তে হলে নতুন প্রজন্মকে স্মার্ট করে গড়ে তুলতে হবে…… নাজমুল হাসান পাপন এমপি বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা শরীফুল আলম কারামুক্ত কুলিয়ারচরে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী নাজমুল হাসানকে নাগরিক সংবর্ধনা ১২ কেজি গাঁজাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার লায়ন মশিউর আহমেদ ওয়েশকা ইন্টারন্যাশনাল জাপান বাংলাদেশ ন্যাশনাল চ্যাপ্টার এর দ্বিতীয় ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচিত ভৈরবে ১ সপ্তাহের ব্যবধানে দুই গৃহবধূ জন্ম দিলেন ৬ সন্তান ভৈরবে শিমুলকান্দি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের নবম বর্ষে পদার্পণে কেক কাটা ও সার্টিফিকেট বিতরণ

কিশোরগঞ্জের ৬টি আসনে ৫৪ প্রার্থী, স্বতন্ত্র ১৩ জন

রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়ন পত্র জমা দিচ্ছেন রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি -পূর্বকণ্ঠ

কিশোরগঞ্জের ৬টি আসনে
৫৪ প্রার্থী, স্বতন্ত্র ১৩ জন

# নিজস্ব প্রতিবেদক :-
কিশোরগঞ্জের ৬টি আসনে মোট ৫৪ জন প্রার্থী আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। এদের মধ্যে ৪১ জন বিভিন্ন দলের প্রার্থী, আর ১৩ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী। জেলা প্রশাসক রিটার্নিং কর্মকর্তা, আর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগণ সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করছেন।
৩০ নভেম্বর বৃহস্পতিবার রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছে মনোনয়ন পত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ছিল। তবে এর আগেও কেউ কেউ মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। আবার বিভিন্ন আসনের প্রার্থীরা সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছেও মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের নৌকার প্রার্থী রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক এমএ আফজলকে সঙ্গে নিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদের কাছে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রুবেল মাহমুদ এবং জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আশ্রাফুল আলমও উপস্থিত ছিলেন। আবার কিশোরগঞ্জ-২ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপির সাবেক এমপি মেজর (অব.) আক্তারুজ্জামানও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার পাশাপাশি রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।
কিশোরগঞ্জ-১ (সদর-হোসেনপুর) আসনে জমা মনোনয়ন পত্র দিয়েছেন ১২ জন। এর মধ্যে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের মেয়ে আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি সৈয়দা জাকিয়া নূর, তাঁর বড়ভাই মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ সাফায়েতুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), তাঁর চাচাত ভাই জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু (স্বতন্ত্র), জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শরীফ আহমেদ সাদী (স্বতন্ত্র), গণতন্ত্রী পার্টির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ভূপেন্দ্র ভৌমিক দোলন, ডা. আব্দুল হাই (জাতীয় পার্টির), মো. আনোয়ারুল কিবরিয়া (এনপিপি), মো. আব্দুল আউয়াল (বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট). মো. আশরাফ উদ্দিন (ইসলামী ঐক্যজোট), মো. নাসির উদ্দিন (জাকের পার্টি), মোবারক হোসেন (বাংলাদেশ কংগ্রেস), মো. আবুল কাশেম (বাংলাদেশ কংগ্রেস)। এই আসনে মোট ১২ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।
কিশোরগঞ্জ-২ (কটিয়াদী-পাকুন্দিয়া) আসন থেকে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাবেক অতিরিক্ত ডিআইজি বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুল কাহার আকন্দ, আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি পাকুন্দিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক সোহরাব উদ্দিন (স্বতন্ত্র), বিএনপির সাবেক এমপি মেজর (অব.) আক্তারুজ্জামান (স্বতন্ত্র), মো. আহসান উল্লাহ (তৃণমূল বিএনপি), মো. আশরাফ আলী (গণতন্ত্রী পার্টি), মীর আবু তৈয়ব মো. রেজাউল করিম (গণফ্রন্ট), আলেয়া (এনপিপি), মো. বিল্লাল হোসেন (বিএনএফ)। এই আসনে মোট ৮ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।
কিশোরগঞ্জ-৩ (করিমগঞ্জ-তাড়াইল) আসনে বর্তমান এমপি জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু, আওয়ামী লীগ মনোনীত করিমগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক নাসিরুল ইসলাম খান আওলাদ, স্বতন্ত্র প্রার্থী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার গোলাম কবীর ভূঁইয়া, স্বতন্ত্র প্রার্থী মেজর (অব.) মো. নাসিমুল হক, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ, দিলোয়ার হোসাইন ভূঁইয়া (গণতন্ত্রী পার্টি), মো. আমিনুল ইসলাম (এনপিপি), মো. মাহফুজুল হক (স্বতন্ত্র), মো. রুবেল মিয়া (স্বতন্ত্র), ওমর ফারুক (ইসলামী এক্যজোট)। এই আসনে মোট ১০ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।
কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম) আসনে সাবেক রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সন্তান বর্তমান আওয়ামী লীগের এমপি রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক, মো. আবু ওয়াহাব (জাতীয় পার্টি), আব্দুল মজিদ (বাংলাদেশ কংগ্রেস), মো. জয়নাল আবেদীন (এনপিপি), মো. শরীফুল আহসান (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ), মাওলানা শেরজাহান মোমেন (ইসলামী ঐক্যজোট), মো. নাসিম খান (বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট)। এই আসনে মোট ৮ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।
কিশোরগঞ্জ-৫ (বাজিতপুর-নিকলী) আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বর্তমান এমপি আফজাল হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী যুবলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্মসাধারণ সম্পাদক সুব্রত পাল, মো. মাহবুবুল আলম (জাতীয় পার্টি), মো. সোহরাব হোসেন (তৃণমূল বিএনপি), মো. সাজ্জাদ হোসেন (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ), একেএম নাজমুল হক (জাকের পার্টি), মো. রবিন মিঞা (বাংলদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট), মো. ইমদাদুল হক (বাংলাদেশ ইসলাম ফ্রন্ট)। এই আসনে মোট ৮ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।
কিশোরগঞ্জ-৬ (ভৈরব-কুলিয়ারচর) আসনে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমানের সন্তান আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, তারেক মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম (এনপিপি), মো. রুবেল হোসেন (বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট), হেলাল উদ্দিন (বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি), নূরুল কাদের সোহেল (জাতীয় পার্টি), মো. শাহাবুদ্দীন (স্বতন্ত্র), মো. আব্দুছ ছাত্তার (স্বতন্ত্র), মো. আইয়ুব হোসেন (বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট), আ. হাকিম (জাকের পার্টি)। এই আসনে মোট ৯ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।
দলওয়ারি প্রার্থীতার হিসাব :
আওয়ামী লীগ ৬ জন, জাতীয় পার্টি ৫ জন, গণতন্ত্রী পার্টি ৩ জন, বাংলাদেশ কংগ্রেস ৩ জন, এনপিপি ৫ জন, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট ৩ জন, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি ১ জন, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট ২ জন, জাকের পার্টি ৩ জন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ ২ জন, তৃণমূল বিএনপি ২ জন, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক জোট ১ জন, গণফ্রন্ট ১ জন, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট ১ জন, ইসলামী ঐজ্যজোট ৩ জন, স্বতন্ত্র ১৩ জন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *