• রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৬:০৬ পূর্বাহ্ন |
  • English Version
শিরোনাম :
কটিয়াদীতে দুদল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত শতাধিক, পুলিশের গুলি, গ্রেপ্তার ২৩ জমি অধিগ্রহণের দুই কোটি টাকা ফেরত না দিতে নানা ষড়যন্ত্র দাতার বিরুদ্ধে লাল বাহাদুরের রং পাল্টে হয়ে গেল কুচকুচে কালো নানা অঙ্গসজ্জায় সাজানো হয় কোরবানির পশু পাচারকালে ৬০ বস্তা সার জব্দ করে মামলা পৌনে তিনশ বছরের প্রাচীন শোলাকিয়া ঈদগার প্রস্তুতি ভৈরবে এমবিশন পাবলিক স্কুলের জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা কুরবানী সম্পর্কীত কিছু মাসায়েল ; সংকলনে : ডা. এ.বি সিদ্দিক ছিনতাইকৃত টাকা ও মাদক উদ্ধারে অবদান রাখায় আইজিপি পুরস্কারে ভূষিত ভৈরবের ওসি সফিকুল ইসলাম ইসরায়েলি গণহত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন

মহান আল্লাহ কে? সংকলনে : ডা. এ.বি সিদ্দিক

আল্লাহ, তিনি ছাড়া সত্যিকারের কোন ইলাহ নেই, তিনি চিরঞ্জীব, সর্বদা রক্ষণাবেক্ষণকারী। তাকে তন্দ্রা ও নিদ্রা স্পর্শ করে না। আকাশ মণ্ডলে ও ভূমণ্ডলে যা কিছু আছে, তারই। কে সেই ব্যক্তি যে তার অনুমতি ছাড়া তার নিকট সুপারিশ করে? তিনি সমুদয় প্রকাশ্য ও অপ্রকাশ্য বিষয় জানেন। একমাত্র তিনি যতটুকু ইচ্ছা করেন তা ব্যতীত, তার অনন্ত জ্ঞানের কোন বিষয়েই কেউ আয়ত্ত করতে পারেনা। তার কুরসী আকাশ ও পৃথিবী পরিবেষ্টন করে আছে এবং এ দু’য়ের রক্ষণাবেক্ষণ তাকে ক্লান্ত করে না, তিনিই সর্বোচ্চ মর্যাদাশীল, মহান। (সূরা আল-বাকারাঃ ২৫৫)
অন্যত্র মহান আল্লাহ বলেন, তিনিই আল্লাহ, যিনি ছাড়া সত্যিকারের কোন ইলাহ নেই, অদৃশ্য ও দৃশ্যের জ্ঞানের অধিকারী, পরম দয়াময়, পরম দয়ালু। তিনিই আল্লাহ, যিনি ছাড়া সত্যিকারের কোন ইলাহ নেই, তিনিই বাদশাহ, অতি পবিত্র, পূর্ণ শান্তি, নিরাপত্তা দানকারী, সংরক্ষণকারী, মহাপরাক্রমশালী, অপ্রতিরোধ্য, প্রকৃত গর্বের অধিকারী। তারা যাকে (তার) শরীক করে তা থেকে তিনি পবিত্র, মহান। তিনিই আল্লাহ সৃষ্টিকারী, উদ্ভাবনকারী, আকার-আকৃতি প্রদানকারী। সমস্ত উত্তম নামের অধিকারী। আসমানে ও যমীনে যা আছে সবই তার গৌরব ও মহিমা ঘোষণা করে। তিনি প্রবল পরাক্রান্ত, মহা বিজ্ঞানী। (সূরাহ আল-হাশরঃ ২২-২৪)
অন্যত্র এসেছে, বল, তিনি আল্লাহ, এক ও অদ্বিতীয়। আল্লাহ কোন কিছুর মুখাপেক্ষী নন, সবই তার মুখাপেক্ষী। তিনি কাউকে জন্ম দেন নাই, আর তাকেও জন্ম দেওয়া হয়নি। তার সমকক্ষ কেউ নেই। (সূরাহ আল-ইখলাস ঃ ১-৪)
মহাগ্রন্থ আল-কুরআনের উল্লেখিত আয়াতসমূহে আল্লাহ নিজেই তার পরিচয় তুলে ধরেছেন। আল্লাহ তিনিই যিনি স্বীয় সৃষ্টি, রাজত্ব, পরিচালনা ও কর্ম ব্যবস্থাপনায় রিযিকদাতা, জীবনদাতা, মৃত্যুদাতা, ক্ষমতাশীল এবং কল্যাণ ও অকল্যাণ সাধনকারী হিসেবে এক ও অদ্বিতীয়। তিনি একাই যা ইচ্ছা তা করেন। তিনি সব বিষয়ে অবগত আছেন। তিনি কারো মুখাপেক্ষী নন বরং সকলেই তার মুখাপেক্ষী। তার কর্মসমূহ অগনিত, তার কর্মে তাকে পরাজিত করার মত কেউ নেই। তার কোন শরীক নেই এবং তার সমতুল্য কেউ নেই। তার অনেক উত্তম নাম এবং গুণাবলী রয়েছে, যেগুলো কুরআন এবং সহীহ হাদীসে বর্ণিত হয়েছে। তার সঠিক পরিচয় জানতে হলে তার উত্তম নামসমূহ এবং গুণাবলীর পরিচয় ও বৈশিষ্ট্য জানার পাশাপাশি নিম্নের বিষয়গুলোও জানতে হবে। যথাঃ
(১) মহান আল্লাহ কোথায়?
(২) আল্লাহ কী নিরাকার?
(৩) দুনিয়াতে আল্লাহকে দেখা সম্ভব কী?
(৪) আল্লাহর সমতুল্য কোন কিছু আছে কী?
(৫) মহান আল্লাহর একত্ববাদ তথা তাওহীদ।

পরিশেষে বলা যায় যে, মহাগ্রন্থ আল-কুরআনে এবং সহীহ হাদীসসমূহে মহান আল্লাহ সম্পর্কে যা কিছু বলা হয়েছে, এগুলোর অবস্থা জানার চেষ্টা না করে এবং অন্য কিছুর সাথে তুলনা না করে বরং হুবহু কুরআন ও হাদীস অনুযায়ী ঐগুলোর উপর বিশ্বাস স্থাপন করাই আমাদের জন্য আবশ্যিক তথা ফরয। আল্লাহ আমাদের সবাইকে তার সঠিক পরিচয় জেনে তার প্রতি পূর্ণ ঈমান আনার তাওফীক দিন। আমীন।

প্রচারে : আসুন কুরআন পড়ি, সফল জীবন গড়ি।
আল-শেফা জেনারেল হাসপাতাল (প্রা.), কমলপুর, ভৈরব।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *