• রবিবার, ০৭ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৪৪ অপরাহ্ন |
  • English Version
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জের বিদায়ী পুলিশ সুপারকে ভৈরবে সংবর্ধনা কিশোরগঞ্জে পরিমাপে কম দেওয়ার দায়ে দুই ফিলিং স্টেশনে জরিমানা ৩ লাখ কিশোরগঞ্জ মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতির বিদায় সংবর্ধনা পাকুন্দিয়ায় মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তির লাশ উদ্ধার পাকুন্দিয়ায় হত্যা মামলার প্রধান আসামি পঞ্চগড় থেকে গ্রেফতার হোসেনপুরে হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা কিশোরগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর নামে গড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জীর্ণদশা ভৈরবের নদ-নদী খাল-বিল ভরাট, ব্যাহত হচ্ছে নৌ-যোগাযোগ ও সেচ ব্যবস্থা, সংকটে মৎস্যসম্পদসহ জীব-বৈচিত্র পাকুন্দিয়ায় ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন কিশোরগঞ্জে সফলতার সঙ্গে পারিবারিক বিরোধ মীমাংসায় মহিলা পরিষদ

স্বাবলম্বী বা আত্মনির্ভরশীলতার লাভ ; সংকলনে : ডা. এ.বি সিদ্দিক

সংকলনে : ডা. এ.বি সিদ্দিক

ইসলামী শরীয়ত স্বাবলম্বী বা আত্মনির্ভরশীলতার প্রতি অনেক গুরুত্বারোপ করেছে। যেমন- সূরা আল বাক্বারার ২০১নং আয়াতে আল্লাহ রব্বুল আলামীন পরকালীন কল্যাণ চাওয়ার পাশাপাশি দুনিয়াবী কল্যাণ চাইতেও আমাদেরকে শিখিয়েছেন। আর এটি স্বীকৃত বিষয় যে, দুনিয়াবী বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা পাইতে হলে অবশ্যই স্বাবলম্বী হতে হবে। সূরা কাসাসের ৭৭নং আয়াতে আল্লাহ রব্বুল আলামীন তাঁর প্রিয় রাসূলকে উদ্দেশ্য করে বলেন, তিনি যেন দুনিয়ার কথা না ভূলে যান। এরকমভাবে রাসূল (সা.) আমাদেরকে উদ্দেশ্য করে বলেন, দানকারীর হাত দান গ্রহীতার হাত থেকে উত্তম (বুখারী: ১৪২৭) তিনি অসীয়ত বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে বলেন, সম্পদের পূর্ণ কিংবা অর্ধেক অংশ দান করে ওয়ারিশদেরকে গরীব হিসেবে রেখে যাওয়ার চেয়ে তাদেরকে সম্পদশালী হিসেবে রেখে যাওয়া অনেক উত্তম। (বুখারী: ২৭৪২) প্রশস্ত ও বহুবিধ সুবিধা সম্পন্ন বাড়ি (তথা যে বাড়িতে কিচেন, বাথরুম, টয়লেট, অতিথি কক্ষ, পাঠকক্ষ, খাবার কক্ষ, ইবাদত খানা, লাইব্রেরী, খোলা বারান্দা, বাগান, গাড়ী রাখার ঘর, কর্মচারী কক্ষ ইত্যাদি আছে) এবং আরামদায়ক বাহনকে (তথা, উট, ঘোড়া কিংবা বর্তমান সময়ের গাড়ী ইত্যাদিকে) রাসূল (সা.) সৌভাগ্যের নিদর্শন হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন। (আহমদ: ২৪৪৫, সহিহ ইবনে হিব্বান: ৪০৩২, সহীহ জামে: ৩০৫৬) যা স্বাবলম্বী হওয়া ছাড়া সম্ভব নয়।
উল্লেখিত আলোচনা থেকে স্বাবলম্বী হওয়ার ব্যাপারে ইসলামের অনুপ্রেরণামূলক কিছু কথা আমরা জানতে পারলাম। এবার স্বাবলম্বী বা আত্মনির্ভরশীল হওয়ার কিছু লাভ বা সুবিধার কথা আমরা জানার চেষ্টা করব ইনশাআল্লাহ।
স্বাবলম্বী হওয়ার লাভ: স্বাবলম্বী বা সম্পদশালী হওয়ার অনেক লাভ রয়েছে। তন্মধ্যে মৌলিক কিছু লাভের কথা এখানে তুলে ধরা হল: যেমন- অন্ন, বস্ত্র, শিক্ষা ও চিকিৎসা সংক্রান্ত লাভ বা সুবিধা, যেটাকে আমরা ব্যক্তিগত লাভ বলতে পারি। একজন মানুষের নিজের এবং তার পরিবারের সদস্যদের প্রয়োজনীয় খাবার এবং পোশাক পরিচ্ছদের ব্যবস্থা করার জন্য অবশ্যই তার টাকা-পয়সার প্রয়োজন। নিজে শিক্ষিত হতে গেলে এবং ভাই-বোন ও সন্তানাদিদেরকে শিক্ষিত হিসেবে গড়তে হলে টাকা-পয়সা ছাড়া গড়া প্রায় অসম্ভব। রোগ হলে যথাযথ চিকিৎসার প্রয়োজন যা টাকা পয়সা ছাড়া সম্ভব নয়। এরকমভাবে ইবাদতগত কিছু বিষয় রয়েছে যেগুলো পালন করতে গেলেও সম্পদের প্রয়োজন। যেমন- দান-সদকা করা। দান এত গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত যে, এর বিনিময়ে আল্লাহর ক্রোধ দমন হয়, বিপদ দূরভীত হয়, আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করা সম্ভব হয়, সম্পদ বৃদ্ধি পায়, জাহান্নাম থেকে মুক্তি পাওয়া যায়, জান্নাতে প্রবেশ করার সুযোগ হয়। অথচ এই দান সম্ভব হবে না যদি সম্পদ না থাকে। ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের মধ্য থেকে অন্যতম একটি স্তম্ভ হল হজ্জ করা। যার ফজিলতের ব্যাপারে বিশ^নবী (সা.) বলেছেন, কবুল হজ্জের বিনিময় জান্নাত ছাড়া আর কিছুই নয়। সেই হজ্জ করতে গেলেও টাকার প্রয়োজন। সমাজে ধনী-দরিদ্রের ব্যবধান কমিয়ে আনার জন্য যেই যাকাতের ব্যবস্থা ইসলাম আমাদেরকে দিয়েছে সেটার জন্যও টাকা-পয়সার প্রয়োজন। কুরবানী করতে গেলে, মসজিদ এবং দ্বীনি মাদরাসা নির্মাণ করতে হলে স্বাবলম্বী হওয়া ছাড়া সম্ভব নয়।
মহান আল্লাহ রব্বুল আলামীন বলেন, আর তাদের মোকাবিলার জন্য তোমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী শক্তি ও অশ^ বাহিনী প্রস্তুত কর, তা দ্বারা তোমরা ভয় দেখাবে আল্লাহর শত্রু ও তোমাদের শত্রুদেরকে এবং এরা ছাড়া অন্যদেরকেও, যাদেরকে তোমরা জাননা, আল্লাহ তাদেরকে জানেন। আর তোমরা যা আল্লাহর রাস্তায় খরচ কর, তা তোমাদেরকে পরিপূর্ণ দেয়া হবে, আর তোমাদেরকে যুলম করা হবে না। (সূরা আনফাল: ৬০)
উল্লেখিত আয়াতটিতে আল্লাহ রব্বুল আলামীন আমাদেরকে ইসলামের শত্রুদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার জন্য অস্ত্র-শস্ত্রসহ সামগ্রিকভাবে শক্তি সঞ্চয়ের কথা বলেছেন। আর এই আয়াতের উপর আমল করে শক্তি সঞ্চয় করতে হলেও আমাদের স্বাবলম্বী হওয়া প্রয়োজন।
এক কথায়, স্বাবলম্বী হলে দুনিয়াবী এবং পরকালীন উভয় জগতেরই কল্যাণ লাভ করা সহজ হয়। কাজেই আমাদের প্রত্যেকেরই উচিত বৈধ পন্থায় সম্পদ উপার্জনের মাধ্যমে নিজেদেরকে স্বাবলম্বী হিসেবে গড়ে তোলা। আল্লাহ আমাদের সবাইকে তাওফীক দিন। আমীন
প্রচারে : আসুন কুরআন পড়ি, সফল জীবন গড়ি।
আল-শেফা জেনারেল হাসপাতাল (প্রা.), কমলপুর, ভৈরব।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: কপি করা নিষেধ!!!